ঘুমের ব্যাঘাত, পরিচারিকার মারে প্রাণ গেল অসুস্থ বৃদ্ধার

ওই বৃদ্ধাকে দেখাশোনা করার জন্য দু'জন আয়া রাখা ছিল। গত ১১ তারিখ সকালে ওই মহিলার মৃত্যুর খবর মেলে। এরপর তার আত্মীয়রা এসে বৃদ্ধার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন। বিস্তারিত জানুন...

ঘুমের ব্যাঘাত, পরিচারিকার মারে প্রাণ গেল অসুস্থ বৃদ্ধার
এই সিসিটিভি ফুটেজেই মিলেছে প্রমাণ

ট্রাইব টিভি ডিজিটাল: ঘুমে ব্যাঘাত। পরিচারিকার হাতে খুন বৃদ্ধা। গত ১১ সেপ্টেম্বর ঘটনাটি ঘটলেও বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছে ২৩ সেপ্টেম্বর। বৃদ্ধার বাড়ির CCTV ফুটেজ খতিয়ে দেখে বিষয়টি সামনে আনেন মৃতার আত্নীয়রা। জানা গিয়েছে, বাগুইআটির অনুপমা আবাসনের বাসিন্দা ছিলেন কলা মিশ্র (৭০)। গত ১১ সেপ্টেম্বর, বাগুইহাটির অনুপমা আবাসনে নিজের ফ্ল্যাটে মারা যান ৭০ বছর বয়স্কা ওই মহিলা। দীর্ঘ সাত বছর ধরে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় বিছানা থেকে উঠতে পারতেন না। নিজের ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তিনি।

সূত্রের খবর, ওই বৃদ্ধাকে দেখাশোনা করার জন্য দু'জন আয়া রাখা ছিল। গত ১১ তারিখ সকালে ওই মহিলার মৃত্যুর খবর মেলে। এরপর তার আত্মীয়রা এসে বৃদ্ধার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন। যেহেতু ওই বৃদ্ধা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন তাই তাঁর আত্মীয়রা এই মৃত্যুটাকে স্বাভাবিক বলেই ভেবেছিলেন। কিন্তু CCTV-র ফুটেজ দেখতেই চক্ষু চড়কগাছ। মৃতা বৃদ্ধার পরিবারের লোকজনের চলতি মাসের ১৯ তারিখ ওই বৃদ্ধার ঘরে থাকা সিসিটিভির ফুটেজ দেখেন  সিসিটিভির ফুটেজ ছিল রীতিমতো হাড়হিম করা।

 ওই সিসিটিভি ফুটেজে স্পষ্ট দেখা যায়, ওই মহিলাকে দেখাশোনা করার জন্য নিযুক্ত আয়া ১০ তারিখ প্রায় সারা রাত ধরে অত্যাচার করে বয়স্কা মহিলার উপর। এরপরই পরিবারের পক্ষ থেকে বাগুইহাটি থানায় অভিযোগ জানানো হয়। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ গ্রেফতার করে সোফিয়া খাতুন নামের ওই আয়াকে। বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি ঐশ্বরিয়া সাগর জানান, পুলিশের জেরায় ধৃত মহিলা স্বীকার করেছেন, তার ঘুমের ব্যাঘাত হওয়ার জন্যই মহিলাকে মারধর করেছিলেন। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বাগুইআটি থানার পুলিশ।